আবারও মিজানুর রহমান আহহারীকে নিয়ে নতুন সমালোচনা আরাম্ভ হল। (পুরোটা পড়েন)

আমি গতকাল ওনার লাইভটি অর্ধেক সরাসরি শুনেছি। রোজার বিষয়ে ওনী যতোটা কথা বলেছেন। তাঁর মাঝে রিক্সাওয়ালাদের নিয়ে তিনি যে ফতোয়াটা দিলেন। আমি তখনই বুজেছি এটা নিয়েও সমালোচনা হবে। আর এখন সেটাই হল।
আজ আবার শুরু হল নতুন সমালোচনা।
অর্থ্যাৎ আজহারী সাহেব বলেছেন প্রচন্ড রোদে চৈত্রমাসে রিক্সাওয়ালারা রোজা না রাখলেও হবে
পরবর্তীতে তাঁরা রোজা কাজা করে নিবে।
এখন প্রশ্ন হল ওনাকে কোন রিক্সাওয়ালা এ প্রশ্ন করেন নাই। তো তাঁর কি দরকার ছিলো এসব কথা বলার। যদি কোন রিক্সাওয়ালা প্রশ্ন করতো তিনি তাঁকে উত্তর দিলেই চলতো। সেটা ভিন্ন কথা।
এখনতো রিক্সাওয়ালারা এ সুযোগ শুনলে অনেকে ইচ্ছা করেও রোজা চাড়বে। আর পরে হয়তো সে রোজা তাদের পক্ষে রাখাও সম্ভব হবে না। আর রোজা মানে কি? রোজা মানেইতো না খেয়ে থাকা। আর না খেয়ে থাকার ভিতরে বহু কষ্ট বহু যন্ত্রনা আসবে।
সব কষ্ট সহ্য করেই রোজা রাখতে হবে। এটাই আল্লাহর নির্দেশ। তবেইতো রোজাদারকে রোজার প্রতিদান আল্লাহ নিজ হাতে দিবেন। তো রিক্সাওয়ালা কষ্টের কারণে ভেঙ্গে ফেলবে পরে রাখবে। এ কথা আজ পর্যন্ত কোন আলেমের মুখে শুনি নাই। এ প্রথম আজহারী সাহেব শুনালেন। আর রিক্সাওয়ালারা যদি এখন না রেখে পরে রাখে তাহলে প্রকৃত রমজান মাসের যে ফজিলত সে ফজিলত সে ইফতার সে সেহরীর নেয়ামত কি পরে পাবে?
এখন আবার শুরু হলো আজহারী সাহেবের এ ফতোয়া নিয়ে নতুন বিতর্ক।

মূলত আজহারী সাহেব এসব বিতর্ক চাড়বে না। আর তাঁর ভক্তরাও তাঁর ভুল গুলোকে ভুল বলবে না। আমি বুজিনা তিনি নিজেকে কেন এতো সমালোচিত করেন।

©মুহাম্মদ নাছির হোসাইন!

  • Like
  • Love
  • HaHa
  • WoW
  • Sad
  • Angry