কাজের ছেলে আব্দুল বসের হুইস্কির বোতল থেকে এক দুই পেগ মেরে পানি মিশিয়ে আগের লেভেলে রেখে দেয়।
বস ব্যাপারটা বুঝে কিন্তু এতদিন কিছু বলেননি।
আজ পানির মাত্রা বাড়াবাড়ি রকমের বেশি হওয়ায় ড্রইংরুম থেকেই আব্দুল বলে হাক দিলেন।
কিচেন থেকে আব্দুলের জবাব,
-জ্বে বস!
-তুই হুইস্কিতে পানি মিশাইয়া রাখছস হারামজাদা।
অনেক ক্ষন কিচেন থেকে আব্দুলের কোন জবাব না পাইয়া বস নিজে কিচেনে গিয়া আবার ঝাড়ি
-ক্যারে তরে কিছু কইলাম জবাব দেস না ক্যান?
-শুনতে পাইনি বস!
-প্রথমে তোকে নাম ধরেই ডাকলাম, শুনলি।
-কিচেন থিকা শুধু নামই শুনা যায় আর কিছু শুনা যায় না!
-ফাইজলামি করস, তুই ড্রইংরুমে গিয়া আমারে ডাক দে দেখি!?
আব্দুল ড্রইংরুমে গিয়া জোর গলায় ডাক দেয়,
-বস শুনতে পান?
-হ্যা পাই!
-কাজের বুয়া জরিনারে মোবাইল কিনা দিছে কেডা?
কিচেন থেকে কোন জবাব নাই।
-বাবুর টিচার সুন্দরী আপারে সিনেমায় নিয়া গেছিল কেডায়!
কিচেন থেকে কোন জবাব নাই।
বস ধীরে সুস্থে ড্রইংরুমে ফিরে এসে আব্দুল রে কয়,
-তুই ঠিকই কইছস, কিচেন থেকে প্রথমবারের পর আর কিছু শোনা যায় না, যা কাম কর গিয়া।


(সংগৃহীত)